মাত্র ১৮ বছর বয়সে ইসলামের প্রতি অনুরাগী হয়ে ব্রাহ্মণ থেকে মুসলিম হলেন। ‘বঙ্কে লাল’ পাল্টিয়ে নতুন নাম রাখলেন ‘জিয়াউর রহমান আজমী’।

শুধু ইসলাম গ্রহণ করলে হবে? ‘ইসলাম’ শিখতে চাইলেন তিনি। মানুষের মুখে শুনে আর দেখে ইসলাম পালন করতে চাইলেন না।

তাই ইসলাম শিখতে চলে গেলেন ইসলাম যে জায়গা থেকে দিগ্বিজয় করেছে সেই মদিনায়।

সেখানে হাদিসের উপর স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শেষ করে জ্ঞানের পিপাসায় ছুটলেন মিশরের আল-আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ে। শেষ করলেন পিএইচডিটাও।

শুরু করলেন মদীনা ইউনিভার্সিটিতে শিক্ষকতা। এক সময় মাথায় আসল দুনিয়ার সব সহীহ হাদিস একসাথে করবেন। শুরু করলেন ইসলামের ইতিহাসের অতুলনীয় এক কাজ –
‘আল জামি আল হাদিসিস সহীহিস শামিল’।
এটি ইসলামের ইতিহাসে একমাত্র গ্রন্থ যেখানে কোনো পুনরাবৃত্তি ছাড়াই সকল সহিহ হাদিস লিপিবদ্ধ করা হয়েছে। অর্থাৎ আপনি যদি সকল সহিহ হাদিস একটি বইয়ে পেতে চান—তাহলে এই বইটি আপনার জন্য, যদিও তা ২০ খণ্ডে রচিত।

আমরা যারা জন্মগত মুসলিম তারা ইসলামের জন্য কী করতে চাই, কী রেখে যেতে চাই—একটু ভেবে দেখা যেতে পারে।