চলছে তাবুক যুদ্ধের প্রস্তুতি। রাসূল ﷺ সাহাবীদের আহবান করলেন যুদ্ধের জন্য প্রস্তুতি নিতে এবং যে যা পারে তাই দান করতে। শুরু হয়ে গেল সাহাবীদের মধ্যে কে কত বেশী দান করতে পারে তার প্রতিযোগীতা।

২০০ উট আর ২০০ উকিয়া (প্রায় ২৯ কেজি) রৌপ্য নিয়ে উসমান রদ্বিয়াল্লাহু ‘আনহু ব্যবসার উদ্দেশ্যে কাফেলা প্রস্তুত করছিলেন। সেগুলো সবই নিয়ে আসলেন রাসূল ﷺ -এর নিকট। এরপর আরও ১০০ উট এবং ১,০০০ স্বর্ণমুদ্রা (প্রায় ৬ কেজি) নিয়ে আসলেন তিনি। এরপরও উসমান ক্ষান্ত হলেন না। সদকা করতেই থাকলেন। এভাবে তাঁর দানকৃত জিনিসের পরিমাণ নগদ অর্থ বাদে নয়শ উট এবং একশ ঘোড়া পর্যন্ত পৌঁছল।

এদিকে আব্দুর রহমান ইবন আওফ নিয়ে আসলেন ২০০ উকিয়া (প্রায় ২৯ কেজি) রৌপ্য। আবু বকর নিয়ে আসলেন তাঁর যা কিছু আছে সব। উমার দিয়ে দিলেন তাঁর সমস্ত সম্পদের অর্ধেক। এভাবে সব সাহাবী অংশগ্রহণ করলেন যে যা পারেন তাই দিয়ে। এমনকি অনেক সাহাবী ১ মুঠ ২ মুঠ করে খেঁজুরও নিয়ে আসলেন।

বাদ গেলেন না মহিলা সাহাবীরা। তারা গলার মালা, হাতের চুড়ি, পায়ের অলংকার, কানের রিং, আংটি যার যা ছিল তা নবী কারীম ﷺ -এর নিকটে পাঠিয়ে দিলেন। মুনাফিকরা ছাড়া এমন কেউ ছিল না যে কিছুই দান করেনি!

সূত্র : আর-রাহীকুল মাখতুম।